কলা প্রিয় নাকি পেঁপে?

1447060927_blend

কলার গুণাগুণ

* কলার শর্করা, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ও মিনারেল খুব দ্রুত শরীরে শক্তি এনে দেয়।

* কলা মাংসপেশিকে কোমল ও মসৃণ করে স্নায়ুকে সতেজ রাখতে সহায়তা করে।

* পাকা কলা পাকস্থলীকে সক্রিয় রাখতে সহায়তা করে।

অ্যাসিডিটি কমাতে খুব বেশি সহায়ক একটি ফল হলো কলা।

কলা রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে এবং স্ট্রোক প্রতিরোধ করে।

পেঁপের গুণাগুণ

* পেঁপের ভিটামিন এ, সি এবং ই অখেরোস্ক্লেরোসিস এবং ডায়াবেটিস ও হৃদ্‌রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করে।

* প্রতিদিন পেঁপে খেলে চোখের বয়সজনিত রোগ অনেক কমে যায়।

* মুখে রুচি বাড়ায় এবং হজমে সহায়তা করে।

* মিষ্টি এই ফলটি অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ফ্লেভানয়েড, লুইটেন, বিটা ক্যারোটিনযুক্ত যা ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়।

* ব্রণের দাগ কমাতে সাহায্য করে এই ফলটি।

যাঁদের খেতে মানা

* যাঁদের ডায়াবেটিস আছে তাঁদের জন্য সম্পূর্ণ পাকা কলা মানেই বিপদের হাতছানি।

* বেশি পেঁপে খেলে শ্বাসযন্ত্রের পীড়া দেখা দিতে পারে।

* যাঁদের মাইগ্রেনের সমস্যা আছে তাঁরা পেঁপে খান, কলা থেকে দূরে থাকুন।

* দাঁতের ক্ষয় এড়াতে কলা কম খান।

* গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিরা পেঁপে খেলে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে।

* যাঁদের কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা আছে তাঁদের জন্য কলা না খেয়ে পেঁপে খাওয়া ভালো।

* শরীরের ওজন কমাতে পেঁপে খেতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *